নৈতিকভাবে সরকারের পতন হয়েছে: মওদুদ

Published 04/07/2012 by idealcollect

Imageপদ্মা সেতুতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন বাতিলের ঘটনায় ‘নৈতিকভাবে’ সরকারের পতন হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। 

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, “দেশে কোনো দায়িত্বশীল সরকার নেই। তাদের অদক্ষতা, সমন্বয়হীনতা ও দুর্নীতির কারণেই পদ্মাসেতু নির্মাণ নিয়ে সঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে।”

“আমরা মনে করি, পদ্মা সেতুতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন বাতিলের সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে নৈতিকভাবে সরকারের পতন ঘটে গেছে। এখন তারা জোর করে ক্ষমতায় থাকার চেষ্টা করছে।”

দুর্নীতির অভিযোগের প্রমাণ পাওয়া গেছে দাবি করে শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতু প্রকল্প থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয়। গত বছর এপ্রিলে স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী ২৯০ কোটি ডলারের এ প্রকল্পে তাদের ১২০ কোটি ডলার দেওয়ার কথা ছিল।

জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম মহানগর শাখার উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ বলেন, “পদ্মাসেতু নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর মন্ত্রীরা এমনভাবে কথা বলছেন যেন, বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়ন ছাড়াই সরকার পদ্মাসেতু নির্মাণ করবেন।”

গত বছর বিশ্ব ব্যাংক দুর্নীতির অভিযোগ জানানোর পর অভিযোগ আমলে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ওই সময়ই যদি তখনকার যোগাযোগ মন্ত্রীকে ‘সরিয়ে’ দিতেন, তাহলে এই সঙ্কটের সৃষ্টি হতো না বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

সরকারের ‘দুর্নীতিবাজদের’ বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবি জানিয়ে মওদুদ বলেন, “সরকারের কাছে আবেদন রাখছি, দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত মন্ত্রীকে অপসারণ করুন। সরকারকে পরিচ্ছন্ন করুন। বিশ্ব ব্যাংকের সঙ্গে সমঝোতায় আসুন। পদ্মা সেতু এদেশের জনগণের প্রয়োজন।”

বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই সাংসদ অভিযোগ করেন, দুদক সরকারের ‘আজ্ঞাবহ প্রতিষ্ঠান’ হিসাবে কাজ করছে।

“বিশ্ব ব্যাংক পদ্মা সেতুর দুর্নীতির অভিযোগ করার পর কীভাবে মন্ত্রীদের বাঁচানো যায়, দুদক সেই চেষ্টা করছে। আমরা মনে করি, দুদক আইগতভাবে কাজ করছে না।”

‘গুম-হত্যা-জেল-জুলুম-নির্যাতন-দুর্নীতি ও বর্তমানে সরকারের ব্যর্থতা: আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এই আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম মহানগর সভাপতি নাহিদুল ইসলাম নাহিদ।

অন্যদের মধ্যে বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, কেন্দ্রীয় নেতা ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের সভাপতি শ্যামা ওবায়েদ বক্তব্য দেন।

বিশ্বব্যাংকের অধীনে পদ্মাসেতু চাই

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জিয়া ব্রিগেডের উদ্যোগে এক অবস্থান ধর্মঘটে বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, “বিশ্ব ব্যাংকের নুতন প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিমও বলেছেন, পদ্মাসেতু ঋণ চুক্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত সঠিক। আমরা মনে করি, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নিয়ে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সমঝোতা করে চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করবে।”

“আমরা অন্য কোনো বিকল্প নয়, বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে পদ্মাসেতু চাই।”

সাবেক ছাত্র নেতা ও ঢাকা-১৭ আসনের নেতা আজিজুল বারীর বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা মামলা’ দায়েরের প্রতিবাদে এই কর্মসূচি পালন করে জিয়া ব্রিগেড।

সংগঠনের সভাপতি জাহিদ ইকবালের সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অন্যাদের মধ্যে স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ নাসের, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল বারী বাবু, হৃদয় বাংলাদেশ এর সভাপতি মো. হানিফ, আজিজুল বারী হেলালের স্ত্রী বুশরা হেলাল বক্তব্য রাখেন।

By (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: